23 Lessons in 2023

23 Life Lessons in 2023

1. Perfect is the enemy of good! Perfectionist হতে গিয়ে আমরা অনেক কিছু শুরুই করিনা। পথে নামলেই পথ চিনা যায় – কোন কিছু শুরু করে দিলে ভুল হতে পারে। এক্ষেত্রে Process Maintain করতে থাকলে ঠিকই একসময় Standard Level এ চলে আসে সব। ✨

2. Fear of failure & Overthinking about the past or future: ভুল/ব্যর্থতা না থাকলে তো সফলতা এতটা Glorify হতনা, তাইনা? ভুল হবে এই ভয় পাওয়াটা তাই অনর্থক। ভুল ত্রুটি নিয়েই জীবন। Life goes on and you have to move on by accepting the reality/failure! 😵‍💫

3. Consistency & Habit Building: একদিন ১২ ঘণ্টা কাজ করে ফাটায় দিলাম কিন্তু পরের দিনই আর এনার্জি কুলাচ্ছেনা এমনটা না করে প্রতিদিন Consistently ৫ ঘণ্টা কাজ করাটাই বেটার। Exercise থেকে শুরু করে যেকোন ভাল কিছুর Habit Build করতে Regularity Maintain করার বিকল্প নেই, হোক সেটা খুব অল্প সময়ের জন্য। যেকোন কিছু ৩ সপ্তাহ টানা করলে সেটার Habit Build হয়েই যায়। ✅

4. Growth Mindset/Fixed Mindset – Failure আসতেই পারে, আর হতাশ হওয়াটাও অস্বাভাবিক কিছুনা। তবে সেটা থেকে lesson নিয়ে Grow করার চেষ্টা করাই উচিৎ। দক্ষতা/জ্ঞান সবকিছুই উন্নতি করা সম্ভব Dedication/Effort দেয়ার মাধ্যমে। ☑️

5. Comfort zone – ছোট লক্ষ্যে পৌঁছে ইফোর্ট দেয়া বন্ধ করলে সেটা অনেকটা বিপদ বয়ে আনতে পারে। নিজেকে আর নিজের Ability কে Push করে Next Level এ নিয়ে যাওয়া উচিৎ সবসময়। Don’t get comfortable with yourself!

6. Dealing with Criticism – বিভিন্ন কায়দায় খোঁচা দেয়া মানুষ থেকে দূরে থাকা উচিৎ। Constructive criticism আমি পছন্দ করি তবে সেটারও তো কিছু System আছে। যে জিনিসটা চাইলেই ব্যক্তিগতভাবে বলা যায় সেটা পাবলিক প্লেস বা ফোরামে বলাটা অনুচিত। আমি নিজেও সাবধানতা অবলম্বন করি এই বিষয়ে।

7. Appreciate other: if you can listen to someone without judgement, that’ll be the best and most beautiful gift for that person! খুশিমনে নিজের অর্জন বা কিছু শেয়ার করলেন কাউকে। তখন যদি এপ্রিসিয়েট না করে বরং উক্ত ব্যক্তি নিজের অর্জনকে হাইলাইট করে – এটা আমি ভাল চোখে দেখিনা। There will always be some negative energy and negative people around you!

8. Profession and Money: নিজের প্রফেশনকে ছোট দেখানো অনুচিত। আপনার জীবিকা নির্বাহের জন্য, আপনার পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার জন্য, যে কোন সৎ উপায়ে উপার্জনই আনন্দের, গর্বের এবং সম্মানের। জীবনে টাকার ভুমিকা অনেক তাই টাকা ম্যাটার করেনা এসব ফালতু কথা বলে লাভ নাই। দিনশেষে আপনি যাই করেন না কেন, এই টাকাকে Output হিসেবে পাওয়ার জন্যই করেন। নীতি নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে টাকা আয়ের অবশ্য স্বার্থকতা নেই। 💵

9. Nature of people– আজীবন উপকার করে একদিন উপকার করতে না পারলেই আপনার বিরুদ্ধাচরণ করবে মানুষ, এটা মেনে নিয়ে উপকার করবেন। অবশ্য নিজেকে খুব বেশী সস্তা/affordable বানাবেন না, পারলে Exclusivity টা বজায় রাখেন। নিজের Value টা কিছু যায়গায় একটু বুঝাতে হয় নইলে কিছুটা সমস্যা পোহাতে হবে। কখনো ফ্রিতে যেচে কাউকে জ্ঞান দিবেন নাহ, না চাইলে।

10. Self Judgement is important: প্রতিদিন ১০ মিনিট বা সেটা না পারলে সাপ্তাহিতভাবে নিজে নিজেকে কিছুক্ষণ সময় দিন আর self questioning করুন। আপনার কমতি, ভুল, কিভাবে শুধরানো যাবে অনেক কিছুই বুঝে যাবেন। আপনার চেয়ে আপনাকে বেশী কেউ বুঝেও নাহ – এটা মাথায় রাইখেন।

11. Nothing is permanent: জীবনটা খুব যে ছোট তাও কিন্তু নয়! তবে এখানে নিজের/অন্যের স্বার্থে বা সময়ের প্রয়োজনে অনেকে আসবে আবার চলেও যাবে। ফার্স্ট ইয়ারের সেই কাছের বন্ধুটা হয়তো আপনার সাথে ভালভাবে কথাও বলেনা – এগুলাতে মাইন্ড খাওয়ার কিছুনাই। তারা তাদের Role Play করেছে। আর খুব কম সম্পর্ক Static থাকে!

12. Logical thinking এ অভ্যস্ত হতে হবে। Emotion/Sentiment থাকা ভাল তবে সেটা Backed by Reasoning থাকাটা প্রয়োজন। Sherlock Holmes এর ফ্যান আমি সেখানে শার্লক বলেছিলঃ ‘Sentiment is a chemical defect found in the losing side’’ – আমিও এটা বিশ্বাস করি।

13. Invest in your skill – নিজের স্কিল বাড়ানোর চেষ্টা করতে হবে। সেটা বই কিনে হোক, কারো কোর্স কিনে হোক, বা যেভাবেই সম্ভব! Social Media Consumption একটু কমাতে হবে নইলে সময় নষ্ট কন্ট্রোল করা বেশ মুশকিল। 💼

14. সবাই আপনার ভাল চায়না এই বাস্তবতা মেনে নিতে হবে। কিছু মানুষ চাইবেনা আপনি উন্নতি করেন। আপনার কাজ হচ্ছে এদের হতাশ করা। পাশাপাশি আল্লাহর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করা যেন তিনি এসব মানুষের বদনজর থেকে আমাদের নিরাপদ রাখেন। 😇

15. Don’t make everything Public: অনেক জিনিসই একান্ত নিজের কাছে রাখাই উচিৎ।

16. Maintain To-do list/ Diary writing – Todo List এর জন্য নোটবুক/whiteboard ব্যবহার করা উচিৎ। সাপ্তাহিক/দৈনিক ডায়েরি লিখার অভ্যাসটা কিন্তু বেশ ভালই। 📔🖋️

17. Knowledge Gain through Books: বই পড়া সবসমই গুরুত্বপুর্ণ। একজন লেখকের আহরিত জ্ঞানের একটা রুপরেখা পাওয়া যায় তার প্রকাশিত বইয়ে। বায়োগ্রাফি পড়া বেশ ভাল হতে পারে, আমি নিজেও চেষ্টায় আছি বই এ বেশী সময় দিতে। ফিজিক্যাল বই পড়ার ধৈর্য্য না থাকলে Blinkist এপ থেকে Audio/Text Summary শুনে/দেখে নিতে পারেন। (এই ব্যপারে আরো জানতে আমাকে মেসেজ দিতে পারেন) 📚

18. Day off/Vacation: যেকোন প্রফেশন বা স্টুডেন্ট লাইফ যাই হোক সপ্তাহে একটা দিন পুরোপুরি ছুটি নেয়া উচিৎ। জীবনে চলার পথে Burnout Time চলে আসে অনেক সময় – Mental Downtime এ কিছুদিন তখন ছুটি নেয়া প্রয়োজন। Creative/Brain ব্যবহার করা লাগে এমন কাজে বেশী চাপ দিলে Maximum Output আসা সম্ভব নাহ – বরং সব বিচ্ছিরি স্টাইলে কলাপ্স হতে পারে। 😊

19. Ethics/Personality আপনার মনে হতেই পারে যে নীতি নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে অনেকে সুবিধা পাচ্ছে। তবে নিজের কাছে Ethics & Personality Maintain করে চলার মাঝে মানসিক তৃপ্তি আছে। অনেক মানুষকে বড় বড় কথা বলতে দেখছি তবে সুযোগ পাওয়া মাত্রই শুধু টাকার লোভে Unethical কাজ করেছে। আল্লাহ আমাকে সহ সবাইকে এসব থেকে দূরে রাখুক এটাই দোয়া করি। 🌟

20. সবার সাথে ভাল সম্পর্ক রাখা সম্ভব নাহ। সবার চিন্তা ধারা আপনার মত হবেনা। তবে তার মানে এই না যে খারাপ সম্পর্ক রাখতে হবে। সাংঘর্ষিক দিকগুলা এড়ায় চলা উচিৎ। 🟩

21. Show off is necessary sometimes! আমি সবার সাথে মিশতে পারি বেশ সহজেই – সেটা বয়সে অনেক ছোট বা বড় হোক, ধনী কিংবা গরীব! অতিরিক্ত Down-to-earth হয়ে চলা বা সবাইকে সন্মান প্রদর্শন করাটা অনেকে দুর্বলতা মনে করে।Materialistic জিনিস কিংবা Attitude দিয়ে নিজের Level কিছু অংশে ঠিক রাখাটাও প্রয়োজন। Don’t Judge a Book by its Cover বললেই তো হয়না, কেননা প্রাথমিক অবস্থায় উক্ত কাভার দিয়েই বইটাকে বিবেচনা করতে হয়। 🌟

22. Identify ungrateful People: এটা গুরুত্বপুর্ণ। অনেক সময় দেখবেন নিজেদের কাছের মানুষরাই এমন বেশী। তবে তাদের জীবন থেকে Delete করা না গেলেও Ignore করা সম্ভব। ❎

23. আপনার ব্রেইন সব কিছু মনে রাখার জন্য নাহ
, এটা গুরুত্বপুর্ণ কাজ করার জন্য। তাই Physical/Digital Notebook ব্যবহার করেন। পারলে Google Calender/Sticky Notes/Alarm/Reminder এসব ব্যবহারে অভ্যস্ত হন। 📝📅